Friday, January 22, 2021

দেশে মৎস্য চাষ ও পশু পালন উৎসাহিত করতে সরকার নানা পদক্ষেপ নিয়েছে। এসব পদক্ষেপ বাস্তবায়নের ফলে দেশে মাছের উৎপাদন ২০০৮-০৯ সালে ২৭ দশমিক ১ লাখ টন থেকে বেড়ে ২০১৪-১৫ সালে ৩৬ দশমিক ৮৪ লাখ টন হয়েছে। ২০০৮-০৯ অর্থবছরে দেশে জনপ্রতি দৈনিক দুধের প্রাপ্যতা ছিল গড়ে ৪৩ দশমিক ৩৫ মিলি লিটার যা ২০১৫-১৬ অর্থবছরে বেড়ে হয়েছে ১২৫ দশমিক ৫৯ মিলি লিটার। ২০০৮-০৯ অর্থবছরে দেশে জনপ্রতি দৈনিক মাংসের প্রাপ্যতা ছিল গড়ে ২০ দশমিক ৪৪ গ্রাম, যা ২০১৫-১৬ অর্থবছরে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০৬ দশমিক ২১ গ্রাম। রোববার জাতীয় সংসদে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপির এক প্রশ্নের জবাবে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী মোহাম্মদ ছায়েদুল হক এসব তথ্য জানান। মন্ত্রী বলেন, মৎস্য চাষ উৎসাহিত করতে মৎস্য অধিদফতর মুক্ত জলাশয়ে পোনামাছ অবমুক্তি, মৎস্য চাষবিষয়ক প্রশিক্ষণ, বিল নার্সারি পরিচালনা, অভয়াশ্রম স্থাপন এবং মৎস্যসম্পদ সংরক্ষণে প্রচারণা ও সচেতনতা বৃদ্ধির পদক্ষেপ নিয়েছে। এ ছাড়া ক্ষুদ্রঋণ কার্যক্রম ও মৎস্য সংরক্ষণ আইন সম্পর্কে প্রচার কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়েছে। তিনি বলেন, দুধ উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য জাত উন্নয়নের লক্ষ্যে গবাদিপশুর কৃত্রিম প্রজনন কার্যক্রম দেশব্যাপী ৩ হাজার ৭৫০টি কৃত্রিম প্রজনন উপকেন্দ্র ও পয়েন্টের মাধ্যমে পরিচালিত হচ্ছে।
মন্ত্রী আরও বলেন, গবাদিপশু ও হাঁস-মুরগির রোগ প্রতিরোধ কার্যক্রমের অংশ হিসেবে সরকারিভাবে উৎপাদিত টিকা কম দামে খামারিদের মধ্যে বিতরণ করা হচ্ছে। সরকার দেশের প্রাণিসম্পদ সংশ্লিষ্ট খামারিদের উৎসাহিত করতে সহজ শর্তে ঋণ দেয়ার পদক্ষেপ নিয়েছে।
হাবিবুর রহমানের এক প্রশ্নের জবাবে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী বলেন, মাছ উৎপাদনের ১১ ভাগ আসে ইলিশ থেকে। বর্তমানে যে পরিমাণ ইলিশ উৎপাদিত হয় তাতে চাহিদা পূরণ হয় না। চাহিদা পূরণের লক্ষ্যে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। আশা করা যায়, ভবিষ্যতে শুধু মেঘনা নয় পদ্মা ও অন্যান্য নদীতে ইলিশ মাছের মজুদ গড়ে উঠবে। গোলাম দস্তগীর গাজীর এক প্রশ্নের জবাবে ছায়েদুল হক বলেন, ২০১৫-১৬ অর্থবছরে ৮৮ লাখ ৫৯ হাজার ৩৫০ টন মাছ আমদানি করা হয়।
ই-জুডিশিয়ারিতে বিচার প্রক্রিয়া আরও স্বচ্ছ ও গতিশীলতার আশা আইনমন্ত্রীর : ই-জুডিশিয়ারি বাস্তবায়িত হলে দেশের আদালতের বিচার প্রক্রিয়া আরও সহজ, স্বচ্ছ এবং গতিশীল হবে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। মোহা. গোলাম রাব্বানীর প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান। মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগে অধস্তন আদালতগুলোর কাজকর্মে গতিশীলতা বৃদ্ধির জন্য সরকার ই-জুডিশিয়ারি নামে একটি প্রকল্প গ্রহণের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।
রুস্তম আলী ফরাজীর প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, মামলার জট কমানোর লক্ষ্যে পুরনো মামলাগুলো অগ্রাধিকার ভিত্তিতে নিষ্পত্তির প্রতি গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে।
একেএম শাহজাহান কামালের প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের তালিকাভুক্ত আইনজীবীর সংখ্যা ৫৪ হাজার ৬৫২ জন। বর্তমান সরকার ২০১৪ সালে ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকে ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ তারিখ পর্যন্ত সারা দেশের আদালতে মামলা নিষ্পত্তি হয়েছে ৪০ লাখ ৬৪ হাজার ৫৩৭টি।
দিদারুল আলমের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, মুসলিম বিবাহ ও তালাক বিধিমালা- ২০০৯-এর ২১ বিধি অনুযায়ী নিকাহ ও তালাক নিবন্ধন ফি বাবদ একজন নিকাহ রেজিস্ট্রার ৪ লাখ টাকা পর্যন্ত দেনমোহরের ক্ষেত্রে প্রতি ১ হাজার টাকায় ১২ টাকা ৫০ পয়সা হারে বিবাহ নিবন্ধন ফি আদায় করতে পারবেন। দেনমোহরের পরিমাণ ৪ লক্ষাধিক হলে পরবর্তী প্রতি লাখে দেনমোহরের জন্য ১০০ টাকা বিবাহ নিবন্ধন ফি আদায় করতে পারবেন। তবে দেনমোহরের পরিমাণ যাই হোক সর্বনিু ফি ২০০ টাকার কম হবে না।
সবাইকেই সিভিল সার্ভিসের সদস্য হিসেবে ঘোষণা দেয়ার কোনো পরিকল্পনা আপাতত সরকারের নেই : সবাইকে সিভিল সার্ভিসের সদস্য হিসেবে ঘোষণা দেয়ার কোনো পরিকল্পনা আপাতত সরকারের নেই বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। একেএম রহমতুল্লাহর এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ তথ্য জানান।
মন্ত্রী বলেন, চাকরি (বেতন-ভাতাদি) আদেশ- ২০১৫-এর অনুচ্ছেদ-৮-এ কর্মচারীদের শ্রেণীর পরিবর্তে গ্রেডভিত্তিক পরিচিতির বিষয় উল্লেখ করা হয়েছে। প্রজাতন্ত্রের কর্মচারীদের জন্য তাদের বেতন স্কেল অনুযায়ী ১ থেকে ২০ পর্যন্ত গ্রেড নির্ধারণ করা হয়েছে। আপাতত এতদসংক্রান্ত অন্য কোনো বিধিবিধানে যাহা কিছুই উল্লেখ থাকুক না কেন, প্রজাতন্ত্রের কর্মচারীরা ১ম, ২য়, ৩য় ও ৪র্থ শ্রেণীতে বিভাজনের বিদ্যামান ব্যবস্থার পরিবর্তে বেতন স্কেলের গ্রেডভিত্তিক পরিচিত হবেন।
গঙ্গা ব্যারাজের পানি সুন্দরবন রক্ষার কাজে ব্যবহার হবে : পানিসম্পদমন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ জানিয়েছেন, গঙ্গা ব্যারাজ নির্মিত হলে গঙ্গানির্ভর এলাকায় ১২৩টি আঞ্চলিক নদীতে পানিপ্রবাহ অক্ষুণ্ন রাখাসহ সুন্দরবনের জীববৈচিত্র্য ও বনজসম্পদ রক্ষার কাজে ব্যবহারিত হবে। এম আবদুল লতিফের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

0 Comments

Leave a Comment

আমাদের অনুসরণ করুন

GOOGLE PLUS

INSTAGRAM

LINKEDIN

YOUTUBE

বিজ্ঞাপন দিন

সাম্প্রতিকজনপ্রিয়ট্যাগ

বিজ্ঞাপন দিন

লগ ইন/সাইন আপ

Advertisement

error: Content is protected !!