Friday, January 22, 2021
  • টাঙ্গুয়ার হাওর, সুনামগঞ্জ

টাঙ্গুয়ার হাওর, সুনামগঞ্জ

দেশের অন্যতম বৃহৎ হাওর সুনামগঞ্জের টাঙ্গুয়ার হাওর থেকে খুব অল্প খরচে সল্প সময় নিয়ে ঘুরে  আসতে পারেন।

ঢাকা থেকে সুনামগঞ্জ’র রাতের বাসে করে গিয়েছিলাম আমরা ৫৫০ টাকা ভাড়ায়। শ্যামলি ও হানিফ সহ আরো অনেক গুলো বাস ছেড়ে যায়। ফকিরাপুল গেলেই বাস পাওয়া যাবে। বাসষ্ট্যান্ড থেকে তাহিরপুরের জন্য লেগুনার উঠি প্রতিজন ৮০ টাকা করে। চাইলে লেগুনা/অটো রিক্সা/সি এন জি রিজার্ভ করেও যাওয়া যায়। তাহিরপুর থেকে নাস্তা সেরে নৌকা ভাড়া করলাম ১ দিনের জন্য ২৫০০ টাকা। আর ২ দিনের জন্য নিলে ৪০০০ এর মধ্যেই পেয়ে জাবেন।  এটা নৌকা র ধরন এবং আপনার দরাদরিতে কিছুটা বেশি কম হতে পারে । পুরো সিজনে নৌকা ভাড়া কিছুটা বেশি পরতে পারে।  সাথে রান্নার জন্য আলাদা লোক নিতে হয়  যদি নৌকাতেই রান্না করে খেতে চান। এছাড়াও টেকেরহাট এও হোটেলে খাবার ব্যবস্থা আছে। ছোট বড় মাঝারি যার যেমন প্রয়োজন। তাহিরপুর থেকে বাজার করে নৌকায় উঠে যাই আমরা।

সারাদিন নৌকায় ঘুরে হাওরের অপরিসীম সৌন্দর্য দেখতে দেখতে কখন সময় পেরিয়ে যাবে টেরই পাবেন না। দুপুরের খাবার সেরে বাইক ভাড়া করে শিমুল বাগান, যাদুকাটা নদী, বারেক্কাটিলা দেখে আস্তে পারেন। বাইক ভাড়া জনপ্রতি ২০০ টাকা। দিনশেষে রাত। তারা ভরা আকাশ থেকে একটা তারা মিটিমিটি করে খসে পড়ার দৃশ্য কতটা নয়নাভিরাম ভ্রমণপিপাসুদের জন্য, তা নিজ চোখে না দেখলে বর্ণনা করা অসম্ভব।

টাঙ্গুয়ার হাওর, সুনামগঞ্জ

টাঙ্গুয়ার হাওর, সুনামগঞ্জ

ভরা পূর্ণিমার আলোয় আড্ডা মারতে মারতে বা গলা ছেড়ে গান গাইতে গাইতে আপনার সময়টা কেমন যাবে ভেবে শিহরিত হবেন। সূর্যোদয় নাকি সূর্যাস্ত কোনটা বেশি সুন্দর ছিল সেটা নিয়ে বিতর্ক লেগে যাবে নিজেদের মধ্যে ।

হাওরের মাঝে বিকালের আড্ডা , মুড়ি মাখানো খাওয়া, রাতে তারা দেখা, ঝিরঝিরে বাতাস আপনাকে শহরের ক্লান্তি নিমেষেই উরিয়ে দেবে।

পরদিন সকালে ওয়াচ টাওয়ার দেখে বিদায় জানাতে হবে টাঙ্গুয়ার হাওড় কে।  তাহিরপুর থেকে লেগুনাতে একী ভাবে ফিরে চলা সুনামগঞ্জ শহরে।  সুনামগঞ্জে হাসন রাজার মিউজিয়াম দেখা শেষে রাতের বাসে করে ঢাকায় ফেরত চলে আসতে পারেন।

টাঙ্গুয়ার হাওর, সুনামগঞ্জ

টাঙ্গুয়ার হাওর, সুনামগঞ্জ

ভরা বর্ষায়  টাঙ্গুয়ার হাওড় এর আসল সৌন্দর্য দেখা যায়। মাঝ হাওড়ে ঝুম বৃষ্টির মজা আর নাই বা বললাম।  আর শীত কালে পাবেন নানা রঙ বেরঙের অতিথি পাখি।

নন এসি বাসে যাওয়া আসা আর নৌকায় ১ দিন থাকা ৬ বেলা খাওয়া বাবদ সব মিলিয়ে ৩৫০০- ৪০০০ টাকায় ঘুরে আসতে পারবেন টাঙ্গুয়ার হাওড় । তবে কমপক্ষে ৪-৫ জন হতে হবে। লোক কম হলে খরচ কিছুটা বেড়ে যাবে।

0 Comments

Leave a Comment

error: Content is protected !!